Skip to main content

কিভাবে ঘরে বসে ইনকাম করা যায় | How To Make Money at Home in Bangla

কীভাবে ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করবেন  শীর্ষ 19 টি অর্থ উপার্জনের আইডিয়া যার মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন

বর্তমান সময়ের সবচেয়ে বড় সমস্যা হল টাকা। যদি টাকা না থাকে তাহলে জীবন যেন থেমে যায় এবং প্রায়ই আমরা শুনে থাকি, অর্থ উপার্জন করা সহজ নয় কিন্তু এটা কি সত্যি। হ্যাঁ, এটা সত্যি যে সহজ নয় কিন্তু এটা কি অসম্ভব। কোন কিছুই অসম্ভব নয়, কঠিন, কিন্তু সেই জিনিসটি কী যা সহজেই পাওয়া যায়।

কিভাবে ঘরে বসে ইনকাম করা যায় | How To Make Money Sitting at Home in Bangla


কিভাবে ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করা যায়

আচ্ছা এটা সত্য যে, অর্থ উপার্জন করার জন্য, ছোট শহরের মানুষকে তাদের বাড়িঘর ছেড়ে যেতে হয় এবং কখনও কখনও এটি কিছু মানুষের জন্য খুব কঠিন হয়ে পড়ে কারণ তাদের ছাড়া বাড়িতে চলাটা কঠিন হয়ে পড়ে, বা তারা বাড়ির লোকেদের কে ছেড়ে যেতে চায়না এবং ছেড়ে যেতে  পারেও না।

এইরকম পরিস্থিতিতে, ঘরে বসে কীভাবে অর্থ উপার্জন করা যায়, এই প্রশ্নটি প্রায় সবার মনে আসে, আপনি ইন্টারনেটে এই ধরনের প্রশ্নের উত্তর পাবেন, তাই আপনার জন্য এই ব্লগটি "কীভাবে ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করা যায়" বাংলাতে লেখা হয়। বিশেষ করে এই ব্লগটি সেই গৃহবধূদের জন্য যারা বাড়িতে থেকে কাজ করতে চায়। এবং যারা ঘরে বসে অনলাইন থেকে অর্থ উপার্জন করতে চাই তাদের জন্য।আমি আমার পরিবারকে আর্থিক সাহায্য দিতে চাই।

এটি একটি বড় প্রশ্ন এবং আমার কাজ হল আপনাকে সাহায্য করা, এজন্যই আমি আপনাকে কিছু সহজ কাজের কথা বলছি যার মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করতে পারেন এবং এই সমস্ত কাজ কম বিনিয়োগে শুরু করা যায়।

  1. আপনার নিজস্ব ওয়েবসাইট তৈরি করুন (Start your own website)
  2. ওয়েব ডিজাইনার (Web Design)
  3. অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার (Application Development)
  4. কনটেন্ট রাইটার (Content Writer)
  5. কনটেন্ট লেখার ব্যবসা (Content Writing Business)
  6. অনলাইন কোচিং(Online Coaching)
  7. টিফিন সেন্টার(Tiphin Center)
  8. রান্নার ক্লাস (Cooking classes)
  9. টিউশন (Tuition)
  10. ইংলিশ স্পিকিং ক্লাস (English Speaking Classes)
  11. বয়স্কদের জন্য ক্লাস
  12. পরামর্শদাতা (Counselor)
  13. বিয়ের অনুষ্ঠান বা অন্য কোন পার্টি পরিকল্পনা (Plan a wedding ceremony or any other party)
  14. ইউগা ক্লাস (Yoga Classes)
  15. নাচের ক্লাস (Dance Classes)
  16. সঙ্গীত ক্লাস (Music Classes)
  17. সেলাই ক্লাস (Sewing class)
  18. অনলাইন শপিং পোর্টাল (Online Shopping Portal)

কিভাবে ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করা যায় অথবা ছেলেদের এবং মেয়েদের ঘরে বসে রোজগার 18 টি কাজ যার মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

আপনার নিজস্ব ওয়েবসাইট তৈরি করুন (Start your own website)

আপনি যদি লিখতে জানেন এবং ভাল আর্টিকেল (Article) লিখতে পারেন তাহলে আপনি সহজেই আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। আজকাল, ওয়েবসাইট তৈরির জন্য খুব বেশি প্রযুক্তিগত জ্ঞানের প্রয়োজন নেই এবং ওয়েবসাইটটি খুব সহজেই তৈরি করা হয়। আপনি কীভাবে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন সে সম্পর্কে আমাদের আর্টিকেলটি (Article)পড়তে পারেন এবং আপনি সহজেই একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন।

ওয়েব ডিজাইনার (Web Design)

আপনি যদি ইঞ্জিনিয়ারিং করে থাকেন কিন্তু বাড়ির বাইরে চাকরি করতে না পারেন অথবা আপনার ওয়েব ডিজাইনিং এর জ্ঞান আছে এবং এই কাজটি করতে চান তাহলে আপনি ঘরে বসেও এই কাজটি করতে পারেন। যার জন্য আপনি ইন্টারনেটে ফ্রিল্যান্সার হিসেবে আপনার প্রোফাইল তৈরি করতে পারেন এবং আপনি ইন্টারনেট থেকে ওয়েব ডিজাইনিং এর সম্পূর্ণ জ্ঞানও নিতে পারেন। এইভাবে আপনি ঘরে বসে ওয়েব ডিজাইনার হিসেবে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার (Application Development)

আপনি যদি এপ্লিকেশন বানাতে জানেন, তাহলে একজন ফ্রিল্যান্সারের মত আপনিও ইন্টারনেটের মাধ্যমে এই কাজটি করতে পারেন, আজকাল অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপসের চাহিদা অনেক বেশি, তাই এতেও আপনি ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

ডেভেলপার (Developer)

অনেক ছোট ব্যবসায়ী যাদের যারা তাদের ব্যবসার জন্য সফটওয়্যার বা অ্যাপ্লিকেশন দরকার কিন্তু তারা বড় কোম্পানিকে অনেক টাকা দিতে পারে না, এবং তাই তাদের একজন ফ্রিল্যান্সার অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার এর প্রয়োজন হয়, যদি আপনি এই কাজটি জানেন, অথবা যদি আপনি কিছু দিন প্রশিক্ষণ নিয়ে এই কাজটি করতে চান, তাহলে বাড়িতে বসে আপনি ফ্রিল্যান্সারের মত ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

কনটেন্ট রাইটার (Content Writer)

আপনি যদি লেখালেখিতে আগ্রহী হন, তাহলে আপনি ইন্টারনেটে সার্চ করেন, যদি আপনার ইংরেজি ভাল হয়, তাহলে আপনি প্রচুর অর্থ উপার্জন করতে পারেন, আজকাল কনটেন্ট লেখার কাজ পুরোদমে চলছে, মানুষ ঘরে বসে ব্লগ লিখে অর্থ উপার্জন করছে, তাই আপনি আপনার প্রোফাইলকেও একজন ফ্রিল্যান্সার কনটেন্ট রাইটার বানাতে পারেন। এটা আপনি একজন লেখক হিসেবে রাখতে পারেন। আর আপনি সহজেই ঘরে বসে ব্লগ লিখে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

কনটেন্ট লেখার ব্যবসা (Content Writing Business)

আপনি যদি কিছু অর্থ বিনিয়োগ করে একজন ব্যবসায়ী ব্যক্তির মতো কাজ করতে চান এবং সেই সামর্থ্যও থাকে, তাহলে ঘরে বসে কনটেন্ট রাইটিং ব্যবসা খুবই ভালো। আপনি নিজেই ইন্টারনেটে এর সম্বন্ধে সম্পূর্ণ তথ্য পেয়ে যাবেন। এর পর আপনি ঘরে বসে এই কাজটি করতে পারেন।


অনলাইন কোচিং(Online Coaching)

আজকাল অনলাইন শিক্ষার পদ্ধতি বেড়েই চলেছে, আপনি শিক্ষার্থীকে অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে শেখাতে পারেন, যার জন্য আপনি ইন্টারনেট থেকে সঠিক প্রশিক্ষণ পাবেন। এই সম্পর্কে জানুন এবং ঘরে বসে অনলাইনে শিক্ষা দিয়ে অর্থ উপার্জন করুন।

টিফিন সেন্টার (Tiphin Center)

আপনি যদি রান্নার প্রতি অনুরাগী হন তবে আজকের সময়ে এটি একটি খুব ভাল ব্যবসা। এটি আপনার সাথে অনেক লোকের উপকার করে কারণ একজন ব্যক্তি পড়াশোনা করে এবং শুধুমাত্র পেটের জন্য উপার্জন করে। এজন্যই তারা সারাদিন পরিশ্রম করার পর ভাল সুস্বাদু খাবার খেতে চায় এবং যদি আপনার সেই গুণাবলী থাকে তাহলে আপনি তাদের জন্য এটি করে নিজে উপার্জন করতে পারেন। এই কাজটি প্রথমে ছোট পরিসরে শুরু করা যেতে পারে, যার জন্য আপনার খুব বেশি খরচ হবে না, আপনি আপনার বাড়ির খাবারের সাথে কিছু টিফিন তৈরি করতে পারেন, এতে আপনার কাজ শুরু করা সহজ হবে এবং ধীরে ধীরে এটি বৃদ্ধি পাবে।

রান্নার ক্লাস (Cooking classes)

আপনার যদি ভালো রান্নার দক্ষতা থাকে, তাহলে চেষ্টা করুন এবং অন্যদের শেখান, আপনি বাড়িতেই এই কাজ শুরু করতে পারেন। আমাদের পাড়ায় একটি  রান্নার ক্লাস আছে।তিনি প্রতি বিকেলে রান্না শেখায় এবং বিনিময়ে ছাত্রদের কাছ থেকে ফি সহ তার রাতের খাবার নেয় যাতে সে ছাত্রদের দ্বারা প্রস্তুত খাবারের স্বাদ নিতে পারে এবং তাদের মতামত দিতে পারে। বাড়ির জন্য খাবার রান্না করুন এটা শুনতে অদ্ভুত কিন্তু এটি একটি টিপ যদি আপনি এটি পছন্দ করেন, তাহলে এটি অনুসরণ করুন। কিন্তু রান্নার ক্লাসগুলিও বাড়ি থেকে উপার্জনের একটি ভাল উপায়।

টিউশন (Tuition)

যদি আপনার পড়াশোনা এবং শেখানোর তাগিদ থাকে, তাহলে আপনি বাড়িতে বসে বাচ্চাদের পড়াতে পারেন, আপনি ছোট থেকে বড়দের ক্লাস রাখতে পারেন, যেখানে স্কুল ছাড়া কলেজের বাচ্চারাও থাকতে পারে বা যারা নিয়মিত স্কুলে যায় না তাদেরকেও আপনি কম টাকায় শেখাতে পারেন যাতে তারাও আপনাকে সাহায্য করতে পারে।


ইংলিশ স্পিকিং ক্লাস (English Speaking Classes)

যদি আপনার ইংরেজি ভাল হয় এবং আপনার শেখানোর ক্ষমতা থাকে, তাহলে আপনি ইংরেজি কথ্য ক্লাস শুরু করতে পারেন।আপনি কিভাবে ইংরেজি শেখাবেন সে সম্পর্কে ইন্টারনেটে অনুসন্ধান করতে পারেন।আর আপনি সহজেই নোট প্রস্তুত করতে পারেন এবং আপনার শিক্ষার্থীদের তা শেখাতে পারেন।

বয়স্কদের জন্য ক্লাস

পড়তে অদ্ভুত লাগবে কিন্তু আজকাল সব শিশুরা চাকরির জন্য বাড়ির বাইরে যায় এবং বয়স্করা বাড়িতে থাকে। এমন পরিস্থিতিতে, আজকাল শিশুরা তাদের পিতামাতার সাথে মোবাইল এবং ইন্টারনেটের মাধ্যমে সংযুক্ত থাকে কিন্তু অভিভাবকরা মোবাইল এবং ল্যাপটপের মতো জিনিস ব্যবহার করতে অক্ষম। আপনি যদি এই ধরনের ক্লাস শুরু করেন, তাহলে আরও বয়স্ক ব্যক্তিরা আপনার থেকে উপকৃত হবে, এর জন্য আপনি ঘণ্টার হিসেবে চার্জ করতে পারেন। এমন অনেক বিষয় থাকবে যেখানে বড়রা আপনার সাহায্য চান, তাহলে আপনি এই কাজটি করে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।আপনিও এই কাজটি করতে পছন্দ করবেন কারণ আমি এই কাজটি করেছি। তারা খুশি হলে, তাদের সেই সুখ মনে অনেক আনন্দ দেয়।

পরামর্শদাতা (Counselor)

আপনি মানুষের সমস্যার সমাধান দিতে পারেন যেমন কোন আইনি পরামর্শ, সম্পত্তি সম্পর্কে সঠিক বা ভুল মতামত, বিবাহের মতামত, ব্যবসায়িক মতামত, অর্থ বিনিয়োগের বিষয়ে মতামত এমন অনেক বিষয় আছে যার সম্পর্কে আপনি জ্ঞান অর্জন করে মানুষকে সাহায্য করতে পারেন। গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপ্লিকেশন, জীবনবৃত্তান্ত এবং সিভি তৈরি করে মানুষ, এইগুলিও এমন জিনিস যেখানে মানুষের অনেক সমস্যা রয়েছে।

বিয়ের অনুষ্ঠান বা অন্য কোন পার্টি পরিকল্পনা (Plan a wedding ceremony or any other party)

আপনি বাড়িতে বসেও কারও বিবাহ বা যে কোনও অনুষ্ঠানের জন্য একটি পরিকল্পনা তৈরি করতে পারেন, যেমন আচার অনুষ্ঠান হয় কারণ আজকাল মানুষের মনোযোগ কেবল বিয়ের পার্টি, খাবার এবং পরিধানের দিকে এবং লোকেরা আচার -অনুষ্ঠান ভুলে গেছে। এমন পরিস্থিতিতে, আপনি তাদের গাইড করতে পারেন এবং এর জন্য আপনি অনলাইনে তথ্য সংগ্রহ করতে পারেন।

ইউগা ক্লাস (Yoga Classes)

আপনি একবার প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে ইউগা ক্লাস শুরু করতে পারেন, একবার আপনি বুনিয়াদি জানার পরে, আপনি ইন্টারনেট এবং ইউগা বই এবং অনেক বিখ্যাত ইউগা বিশেষজ্ঞদের সিডির মাধ্যমে নিজেকে আপডেট করতে পারেন। আজকাল লোকেরা ফিটনেসের দিকে অনেক মনোযোগ দিতে শুরু করেছে। এমন অবস্থায়, তাদের সাহায্য করে, আপনি ঘরে বসেও অর্থ উপার্জন করতে পারেন।কিন্তু একবার আপনাকে অবশ্যই একজন বিশেষজ্ঞের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিতে হবে।

নাচের ক্লাস (Dance Classes)

যদি আপনার নাচের দক্ষতা থাকে তাহলে আপনি একটি নাচের ক্লাস শুরু করতে পারেন, এর জন্য আপনাকে খরচও করতে হবে না এবং আপনার শিল্পেরও আবির্ভাব হবে এবং আপনি বাড়িতেও অনুশীলন করবেন যাতে আপনি প্রতিদিন আপনার শিল্পের সাথে পরিচিত হতে সক্ষম হবেন । এছাড়াও আপনি ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করবেন।নাচের ক্লাসের সাথেও আপনি যোগ, অ্যারোবিক্স শিখতে পারেন।

সঙ্গীত ক্লাস (Music Classes)

আপনার যদি সঙ্গীতের শিল্প থাকে। যদি আপনার উপর আয়ত্ত থাকে, তাহলে আপনি একটি সঙ্গীত ক্লাসও শুরু করতে পারেন। এর মাধ্যমে, আপনিও উপভোগ করবেন এবং আপনার শিল্পের সাথে, অন্যদেরও সংগীতের জ্ঞান থাকবে এবং আপনি ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করতে সক্ষম হবেন।

সেলাই ক্লাস (Sewing class)

যদি আপনার বুনন শিল্প থাকে, যেমন ক্রোশেট বা উল, তাহলে আপনি এটি অন্যদের শেখাতে পারেন। এটি আপনার শিল্পে কাউকে আরও দক্ষ করে তুলবে এবং আপনি এটি থেকে অর্থও পাবেন

অনলাইন শপিং পোর্টাল (Online Shopping Portal)

আপনি যদি নিজের দ্বারা কিছু সুন্দর জিনিস বানাতে জানেন বা আপনি নিজের শপিং পোর্টালটি কারো দ্বারা তৈরি করে বা যেকোনো ব্র্যান্ডের সাথে কথা বলে শুরু করতে পারেন, এতে কাপড় ছাড়া অন্য কিছু থাকতে পারে। আপনি ইন্টারনেটেও এই তথ্য পাবেন।


আমি ঘরে বসে অর্থ উপার্জনের জন্য আমার অভিজ্ঞতা থেকে আপনার জন্য এই সমস্ত টিপসগুলো প্রস্তুত করেছি। আমি বাড়িতে বসে কাজ করি এবং খুশি থাকি কারণ কিছু ব্যক্তিগত কারণে আমি কখনই বাড়ির বাইরে যেতে পারতাম না কিন্তু সবসময় কাজ করে কিছু অর্থ উপার্জন করতে চাইতাম। 

কিছুদিন ইন্টারনেটে ঘাটাঘাটি করার পর এবং নিজের কিছু অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে এখন আমি ঘরে বসে অনলাইন থেকে মোটামুটি ভালো এমাউন্টের অর্থ উপার্জন করে থাকি।

এগুলি এমন সব উপায় যার মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করতে পারেন। এবং এই সমস্ত টিপস সেই গৃহবধূদের জন্য খুবই ভালো যারা কিছু করতে চায় কিন্তু ঘর থেকে বের হতে পারে না এবং এই ধরনের মানুষ যারা কোন শারীরিক কারণে ঘর থেকে বের হতে পারে না, তারা এই ব্লগে লেখা টিপস অনুযায়ী কাজ বেছে নিতে পারে।

আজকের যুগে, সমস্ত তথ্য ইন্টারনেটে বিদ্যমান, যদিও বিশ্ব অনেক বড় হয়ে গেছে, কিন্তু ইন্টারনেট এটিকে একটি বাক্সে বন্দী করে রেখেছে। আপনি আজ যা শিখতে চান, আপনি ইন্টারনেট থেকে শিখতে পারেন, যার জন্য একটি ল্যাপটপ, কম্পিউটার বা মোবাইল ফোন এবং একটি ইন্টারনেট সংযোগ থাকা প্রয়োজন।


যারা এ পর্যন্ত আর্টিকেলটা করেছেন তাদেরকে অসংখ্য ধন্যবাদ, এবং আপনাদের যদি কোন বিষয় সম্বন্ধে জানার প্রয়োজন হয়। এবং আমার তরফ থেকে কোনো রকম হেল্প লাগবে বলে মনে হয় তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ সবাইকে।



Comments

Popular posts from this blog

শীর্ষ 6 টি উপায় অনলাইন থেকে টাকা আয় করার সহজ ও সঠিক উপায় | Top 6 Way Online Theke Taka Income Korar

কিভাবে অনলাইন থেকে সঠিক উপায়ে ও সহজে টাকা ইনকাম করা যায় শীর্ষ 6 টি উপায় Kivabe Taka income Korbo  Kivabe Taka income Korbo  Best Way Online Theke Taka Income Korar  অনলাইন ইনকাম অনলাইন থেকে কিভাবে সহজে টাকা  ইনকাম করা যায় অথবা অনলাইনে কিভাবে টাকা  আয় করা যায় এ ধরনের প্রশ্নগুলো বেশির ভাগ করা হয়ে থাকে ইন্টারনেটে। আপনি যখন এখানে এসেছেন তাহলে অবশ্যই আপনি নতুন এবং আপনি অনলাইন থেকে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায় সেটা জানতে চাচ্ছেন। অথবা শিখতে চাচ্ছেন তো আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে আপনাকে সঠিকভাবে গাইড করা। আপনি যদি মনে করে থাকেন যে আপনাকে কোন মোবাইলের অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করার লিংক দেওয়া হবে। অথবা ওয়েবসাইটের লিংক দেওয়া হবে কাজ করার জন্য এবং সেটা থেকে আপনি 500 টাকা অথবা 1000 টাকা দৈনিক ইনকাম করবেন বিকাশে পেমেন্ট নেবেন তাহলে আপনি ভুল জায়গায়  চলে এসেছেন।  আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত যে আপনাকে হতাশ করা ছাড়া আমার আর কিছুই করার নেই  তবে যদি আপনি সমস্ত আর্টিকেলটা পড়েন তাহলে আশাকরি আপনার যত ভুল ধারণা আছে সেই সবগুলো আর থাকবে না। যদি মোবাইলের সফটওয়্যার ডাউনলোড করে সফটওয়্যার  দিয়ে অথবা ওয়েব স

ব্লগ তৈরি করে টাকা ইনকাম করার উপায় | Blog Theke Kivabe Taka Income Korbo

ব্লগ থেকে কিভাবে আয় করা যায় কিভাবে ব্লগিং করতে হয় সম্পূর্ণ গাইড লাইন Blog Theke Kivabe Taka Income Korbo ব্লগ তৈরি করে আয়  ব্লগার থেকে টাকা আয় করার উপায় আপনি যদি ব্লগ থেকে আ য়  করতে চান এবং ব্লগিং কিভাবে করে সেইটা সম্পূর্ণ ভাবে সবকিছু জানতে চান তাহলে অবশ্যই সম্পূর্ন পোস্ট পড়ুন আপনার সব ধরনের প্রশ্নের উত্তর এখানে পেয়ে যাবেন ব্লগিং কিভাবে করতে হয় ব্লগিং করে কিভাবে আয় করা যায় সম্পূর্ণ। ব্লগ থেকে আ য়  করতে যে বিষয়গুলো নিয়ে এখানে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হয়েছে সেই বিষয়গুলো প্রথমে একবার দেখে নিতে পারেন তাহলে আপনার বুঝতে একটু অসুবিধা হয়ে যাবে এবং আপনি যে বিষয়ে জানতে চাচ্ছেন সে বিষয়টা এখানে খুঁজে পাবে সে ক্ষেত্রে আপনার সম্পূর্ণ আর্টিকেল পড়তে হবে না। ব্লগ কি এবং ব্লগিং কেন করে ব্লগ তৈরি করে আয় অথবা টাকা ইনকাম করা যায় কিনা ব্লগ কেন বলা হয় এবং  ব্লগিং কেন বলা হয়  ব্লগিং করতে হলে যে বিষয়টির সম্বন্ধে আপনার জানতে হবে ব্লগ শুরু করতে হলে সর্বপ্রথম কি কি লাগবে ব্লগিং করতে হলে যে বিষয়গুলো আপনাকে মেনে চলতে হবে ব্লগিং করতে হলে যে বিষয়গুলো সম্বন্ধে আপনার ধারণা থাকতে হবে ব্লগিং কর

ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম ফ্রিল্যান্সিং বাংলাদেশ | How To Earn by Freelancing in Bangladesh

 ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম এবং ফ্রিল্যান্সিং করার সম্পূর্ণ গাইড লাইন বাংলাতে How To Make Money From  Freelancing  Anf How To Start Freelancing in Bangladesh ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম ফ্রিল্যান্সিং এমন একটা শব্দ যে বর্তমানে সবার মুখে মুখে সোশ্যাল মিডিয়াতে এমন কোন প্ল্যাটফর্ম পাবেন না যেখানে ফ্রিল্যান্সিং থেকে টাকা ইনকাম করার বিষয়ে কথা হয় না। ফ্রিল্যান্সিং করে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায় সে বিষয়টা নিয়ে মোটামুটি সবারই মনে কৌতূহল জাগে সবাই চায় যে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে। সবাই শুনে যে বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং করে মানুষ হাজার হাজার ডলার মাসে ইনকাম করে এবং সেই ক্ষেত্রে সবারই তো ইচ্ছা হয় যে আমিও ফ্রিল্যান্সিং  করে টাকা পয়সা ইনকাম করি সেজন্য সবাই চায় যে আমিও ফ্রিল্যান্সিং করে হাজার হাজার ডলার মাসে ইনকাম করতে পারব বা করব। প্রথমত এরকম চিন্তা ভাবনায় সবাই করে থাকে আর সেটার কারণ হলো সবাই মনে করে ফ্রিল্যান্সিং মনে হয় একেবারে সোজা শুধু ইন্টারনেটে বসলেই টাকা ইনকাম হবে আসলে মূল বিষয়টা কি ফ্রিল্যান্সিং করে কি সবাই টাকা ইনকাম করতে পারবে যদিও সেটা সম্ভব হয় তাহলে কিভাবে হবে সে জন্য কি ক