Skip to main content

ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম ফ্রিল্যান্সিং বাংলাদেশ | How To Earn by Freelancing in Bangladesh

 ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম এবং ফ্রিল্যান্সিং করার সম্পূর্ণ গাইড লাইন বাংলাতে

How To Earn by Freelancing in Bangladesh | ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম  ফ্রিল্যান্সিং বাংলাদেশ


How To Make Money From Freelancing  Anf How To Start Freelancing in Bangladesh

ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম

ফ্রিল্যান্সিং এমন একটা শব্দ যে বর্তমানে সবার মুখে মুখে সোশ্যাল মিডিয়াতে এমন কোন প্ল্যাটফর্ম পাবেন না যেখানে ফ্রিল্যান্সিং থেকে টাকা ইনকাম করার বিষয়ে কথা হয় না।

ফ্রিল্যান্সিং করে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায় সে বিষয়টা নিয়ে মোটামুটি সবারই মনে কৌতূহল জাগে সবাই চায় যে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে।

সবাই শুনে যে বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং করে মানুষ হাজার হাজার ডলার মাসে ইনকাম করে এবং সেই ক্ষেত্রে সবারই তো ইচ্ছা হয় যে আমিও ফ্রিল্যান্সিং  করে টাকা পয়সা ইনকাম করি সেজন্য সবাই চায় যে আমিও ফ্রিল্যান্সিং করে হাজার হাজার ডলার মাসে ইনকাম করতে পারব বা করব।

প্রথমত এরকম চিন্তা ভাবনায় সবাই করে থাকে আর সেটার কারণ হলো সবাই মনে করে ফ্রিল্যান্সিং মনে হয় একেবারে সোজা শুধু ইন্টারনেটে বসলেই টাকা ইনকাম হবে

আসলে মূল বিষয়টা কি ফ্রিল্যান্সিং করে কি সবাই টাকা ইনকাম করতে পারবে যদিও সেটা সম্ভব হয় তাহলে কিভাবে হবে সে জন্য কি করতে হবে কি কি যোগ্যতা লাগবে অথবা কিভাবে সহজে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করা যায় এবং সে বিষয় নিয়ে আমরা বিস্তারিতভাবে এখন আলাপ করব।

তাহলে চলুন একটু দেখে নেই যে আমরা কোন কোন বিষয়ে বিস্তারিত ভাবে আলাপ করব কোন কোন বিষয়গুলো এখান থেকে শিখতে পারবো।


  1. ফ্রিল্যান্সিং কি এবং ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে করে
  2. সবাই কি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে পারে
  3. ফ্রিল্যান্সিং করে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায়
  4. কোন কাজের মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং করে বেশি টাকা ইনকাম করা যায়
  5. কোন কাজের মাধ্যমে সহজে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করা যায়
  6. কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং শিখবো এবং কার কাছ থেকে শিখব
  7. ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার হিসেবে ভবিষ্যতে কেমন হবে
  8. সবাই কেন ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে চায়
  9. কোন দক্ষতা না থাকলে কি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করা যায়
  10. কিছু প্রশ্ন এবং সে প্রশ্নের উত্তর


ফ্রিল্যান্সিং কি এবং ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে করে

আসলে ফ্রিল্যান্সিং কি অথবা কিভাবে করে এটা নিয়ে তেমন বলার কিছু নেই কারণ মোটামুটি সবাই জানে ফ্রিল্যান্সিং কি এবং কিভাবে করতে হয় সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

তবুও ছোট্ট একটা বিবরণ দিয়ে দেই ফ্রিল্যান্সিং কি অথবা কিভাবে করে সে ক্ষেত্রে যারা একেবারে নতুন এবং ফ্রিল্যান্সিং সম্বন্ধে কোনো ধারণা নেই তাদের জন্য বুঝতে একটু সহজ হয়ে যাবে।

ফ্রিল্যান্সিং মানে কাজ করা যেমন আমরা বিভিন্ন অফিসে কাজ করে থাকে অথবা যে যেভাবেই যে ধরনের কাজ করে থাকে এবং ফ্রিল্যান্সিং মানে একই কথা কাজ করা।

তবে যারা অফিসে কাজ করে তাদের  টাইম মেনটেন করে কাজ করতে হয় আর যারা ফ্রিল্যান্সিং করে তাদের কোন টাইম মেনটেন এর প্রয়োজন হয় না নিজের ইচ্ছে মত কাজ করতে পারে।

বায়াররা বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলোতে এসে কাজের বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকে   এবং যারা ফ্রিল্যান্স তারা সেই কাজগুলো নিয়ে করে এবং কাজ কমপ্লিট হলে সেটা পুনরায় বায়ারকে দিয়ে দেয়। ফ্রিল্যান্সিং শব্দের মানে হলো স্বাধীন বা মুক্ত পেশা।

এটা হল ছোটখাটো একটা বিবরণ যে ফ্রিল্যান্সিং কি এবং কিভাবে করে ফ্রিল্যান্সিং করে মানুষ কিভাবে টাকা ইনকাম করে।

একটা বিষয় আমি ক্লিয়ার করে বলে দেই যে আপনি যদি মনে করেন আজ থেকে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করবেন এবং কালকে থেকে আপনি টাকা ইনকাম করতে শুরু এবং ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করে আপনি কোটিপতি হয়ে যাবেন কিছুদিনের ভিতর তাহলে আমি বলব আপনি ফ্রিল্যান্সিং করার চিন্তা ভাবনা ছেড়ে দিয়ে অন্য কিছু করতে।


সবাই কি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে পারে

প্রথমত আমি একটা কথা সবাইকে বলে দিতে চাই যে সত্যিই যদি আপনি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে সম্পূর্ণ আর্টিকেল পড়ে বুঝে তারপর চিন্তাভাবনা করবেন আসলে আপনার কি করা উচিত।

এ কথাটা সত্য যে সবাই ফ্রিল্যান্সিং করে এখন মোটামুটি ভালো এমাউন্টের টাকা ইনকাম করে তবে সেটা সবাই পারেনা কারণ সবার ধৈর্য থাকে না আর যদিও থেকে থাকে তাহলে হয়তো তার যোগ্যতা থাকে না সে কারণে বেশিরভাগ মানুষই ফ্রিল্যান্সিং করতে এসে ফেল হয়ে যায়।

মূলত নতুন যারা তাদের ক্ষেত্রে এরকম সমস্যাটা বেশি হয়ে থাকে কারণ প্রথম ভাবে যে ফ্রিল্যান্সিং করলেই শুধু টাকা আর টাকা কিন্তু যখন কিছুদিন যায় আর ইনকাম করতে না পারে তখন মনে করে ফ্রিল্যান্সিং করে কিছুই হবে না।

যদি আপনি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে চান সে ক্ষেত্রে আমি বলব প্রথম আপনি চিন্তাভাবনা করে দেখেন যে ফ্রিল্যান্সিং করতে হলে যে যোগ্যতা গুলো প্রয়োজন হয় তার একটা আপনার মাঝে আছে কিনা।

কারণ আপনার যদি যোগ্যতা না থাকে তাহলে আপনি ফ্রিল্যান্সিং করবেন কিভাবে প্রথম আপনি যে ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলো আছে সেখানে চেক করে দেখেন যে কোন ধরনের কাজ ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলোতে বেশিরভাগ ফ্রিল্যান্সাররা করে থাকে।

এবং দেখবেন যে সেই কাজগুলোর মধ্যে এমন কোন কাজ কি আছে যেটা আপনি জানেন এবং যদি থেকে থাকে তাহলে ভালো আর যদি না থাকে তাহলে সে ক্ষেত্রে  অবশ্যই আপনার উচিত হবে প্রথম একটা কাজ শেখা এবং তারপরে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করার চিন্তাভাবনা করা।

সবাই ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে পারবে সে ক্ষেত্রে কোন বাধা নেই তবে প্রথমত যোগ্যতা লাগবে এবং দ্বিতীয়তো ধৈর্য ধরতে হবে কারণ প্রথম অবস্থায় ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলোতে কাজ পেতে একটু কষ্ট হয়ে যাবে।

এবং তার কারণ হলো যারা পুরানো ফ্রিল্যান্সার আছে কাজ করতেছে তারাই কাজ একটু বেশি পায় এবং যারা নতুন তারা কাজ পেতে সময় লাগে এবং সে বিষয়টা মেনে আপনাকে আগাতে হবে।

মনে করেন যারা পুরনো ফ্রিল্যান্সার আছে তারা কাজ সহজে পাওয়ার কারণটা হলো তাদের প্রোফাইল গুলো রেঙ্ক হয়ে গেছে এবং বায়াররা যখন কোন কাজের জন্য ফিলান্সিং সাইটগুলোতে আসে তখন খুঁজে দেখে যে কারা ভালো কাজ করতে পারে তাদের অভিজ্ঞতা বেশি আছে।

সে কারণে তারা পুরনো ফ্রিল্যান্সার যারা আছে তাদেরকে কাজ দেওয়াটাই বেশি ভালো বলে মনে করে কারণ তারাতো কাজের জন্য টাকা দেবে এবং সে ক্ষেত্রে অবশ্যই চাইবে যে ভালো একজন দক্ষ ফ্রিল্যান্সার দিয়ে কাজ করানোর জন্য।

কিন্তু তার মানে এই না যে নতুন ফ্রিল্যান্সার যারা আছে তারা কাজ পাবে না অথবা তাদেরকে বায়াররা কাজ দেবে না অবশ্যই নতুন ফ্রিল্যান্সার যারা আছে তারাও কাজ পাবে।

যদি আপনার যোগ্যতা থাকে তাহলে অবশ্যই আপনি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন এবং অবশ্যই আপনি সাকসেস হতে পারবেন আজ না হয় কাল।


ফ্রিল্যান্সিং করে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায়

ফ্রিল্যান্সিং করে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায় আপনি চাইলে হাজারো কাজের মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং করতে পারেন। কিন্তু কথা হলো আপনার কি এমন কোনো দক্ষতা আছে যেটা দিয়ে আপনি ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন?

যদি আপনি মনে করেন যে আপনার এমন কোন দক্ষতা আছে যেটা দিয়ে আপনি অনলাইনে কাজ করতে পারবেন তাহলে অবশ্যই আপনি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন সে ক্ষেত্রে কোনো সন্দেহ নেই।

প্রথমত আপনাকে যেতে হবে যে ফ্রিল্যান্সিং সাইট গুলো আছে সেগুলো খুঁজতে হবে কাজ এবং সেখান থেকে আপনাকে কাজ নিতে হবে এবং কাজ করে দিতে হবে তাহলে আপনি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

কিভাবে আপনি ফ্রিল্যান্সিং সাইট গুলোতে যাবেন এবং কিভাবে আপনি ভালো ফ্রিল্যান্সার সাইটের সন্ধান পাবেন যেখানে সব সময় কাজ পাওয়া যায়।

আমি এখানে কিছু ফেমাস ফ্রিল্যান্সিং সাইট গুলোর নাম দিয়ে দিচ্ছি যাতে করে আপনারা সহজেই সে ফ্রিল্যান্সিং সাইট গুলোতে যেতে পারে এবং কাজ খুঁজতে পারেন।

Fiverr,   Upwork, freelancerPeoplePerHourguru  Truelancer

এখানে যে সাইট গুলো দেওয়া হল সেগুলো হল সব ফেমাস ফ্রিল্যান্সিং সাইট এগুলো থেকে মানুষ কাজ করে টাকা ইনকাম করে এবং এ সাইটগুলোতে সবসময়ই কাজ পাওয়া যায় এবং আরো অনেক ফ্রিল্যান্সিং সাইট রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে আপনি ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন।

আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং সাইটে যেতে হবে এবং আপনার যে দক্ষতা আছে সেটা নিয়ে গেগ (Gig) বানিয়ে পোস্ট করতে হবে।

তাছাড়া আপনাকে (Gig) বানানোর সময় খুব ভালো করে একটা ডেসক্রিপশন লিখতে হবে যেখানে আপনি খুব সুন্দর করে বুঝাতে পারবেন।

যেমন আপনি যে কাজটা পারেন এটা কেমন পারেন আপনার কত দিনের অভিজ্ঞতা আছে কতদিন যাবৎ আপনি প্রফেশনালি কাজ করেন।

এ বিষয়ে খুব ভালো করে একটা ডেসক্রিপশন লিখতে হবে যাতে করে বায়াররা আপনার (Gig) দেখে আপনাকে কাজ দেওয়ার জন্য রাজি হয়ে যায় এরকম সাজিয়ে গুছিয়ে লিখতে হবে।

আপনি যত স্মার্টলি Gig  ডিসক্রিপশন লিখতে পারবেন  আপনার জন্য ততই ভালো হবে কারণ আপনার ডিসক্রিপশন লেখা সুন্দর হলে কাজ পাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যাবে।

যদি আপনি কসর্বোচ্চ চেষ্টা করে দুইটা অথবা তিনটা কাজ নিয়ে  করে দিতে পারেন সঠিকভাবে তাহলে আপনার প্রোফাইল রেঙ্ক হয়ে যাবে এবং তারপর আপনি সবসময়ই কাজ পেতে থাকবেন এবং আপনি ফ্রিল্যান্সিং করে ভালো পরিমাণের টাকা ইনকাম করতে পারবেন।


কোন কাজের মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং করে বেশি টাকা ইনকাম করা যায়

কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং করে বেশি টাকা ইনকাম করা যায় এবং কোন কোন কাজের মাধ্যমে বেশি টাকা ইনকাম হয় এবং সে বিষয়ে আমি বলবো আপনি যদি প্রথমেই টাকার জন্য দৌড়ান তাহলে আপনি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন না।

যদি আপনি বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং সাইটে যান এবং সেখানে সবচেয়ে হাই লেভেলের gig যদি আপনি পোস্ট করেন তাহলে কি আপনি মনে করেন অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

সে ক্ষেত্রে আমি বলব আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত যে এটা কখনো সম্ভব হবে না এটা যদি আপনি করেন তাহলে সম্পূর্ণ আপনার বোকামি হবে।

তারপরেও মনে করেন একবার ভেবে নিলাম যে আপনি হাই লেভেলের একটা কাজ পেয়ে গেলেন এবং তারপর কি আপনি সেটা কিভাবে কমপ্লিট করে দিবেন যদি আপনার কাজ জানা না থাকে।

যদি আপনি কোন একটা ফ্রিল্যান্সিং সাইট থেকে কাজ নেন আর সে কাজটা সঠিক ভাবে করে দিতে না পারেন এবং বায়ার আপনার নামে কমপ্লেইন করে তাহলে সে সাইট থেকে আপনার কাজ পাওয়ার সম্ভাবনা একবারে জিরো হয়ে যাবে।

তবে এক্ষেত্রে আপনার জন্য দুইটা রাস্তা আছে প্রথমটা হল আপনি যে ধরনের কাজ জানেন সে ধরনের কাজ করার চেষ্টা করেন যদি সেটা ফ্রিল্যান্সিং সাইটে করা সম্ভব হয়।

এবং দ্বিতীয় টা হল আপনি ভালো একটা দক্ষতা শিখে নিন (মানে একটা ভালো কাজ) যেটা দিয়ে আপনি ভালো পরিমাণের টাকা ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম করতে পারবেন এখন বাদবাকি চয়েজ আপনার।

আসলে কোন কোন কাজের মধ্যে ফ্রিল্যান্সিং করে বেশি টাকা ইনকাম করা যায় তার মধ্যে বেশ কিছু কাজ রয়েছে।

যেমন ধরেন:  ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট, গ্রাফিক ডিজাইন, সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট, কপি রাইটার, প্রোগ্রামিং,  টেকনিক্যাল রাইটার, একাউন্ট এক্সেকিউটিভ, একাউন্টেন্ট, পি র ম্যানেজার 

>>> (Accountant), (Account Executive), (Copywriter), (Graphic Designer), (PR Manager), (Professor), (Programmer), (Software Developer), (Technical Writer), (Web Developer)<<<

এই ধরনের কাজ যদি আপনার জানা থাকে তাহলে ফ্রিল্যান্সিং করে অনেক বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন যেমন ধরেন

এই কাজগুলোর প্রতি ঘন্টায় 30$ ডলার থেকে 50$ ডলার পর্যন্ত দেওয়া হয়।

আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং করে অনেক টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে এ ধরনের একটা পেশা আপনি শিখে নিতে পারেন সেটা খুবই ভালো হয় এবং বাকিটা আপনার উপরে যেটা আপনার ভাল মনে হয় সেটাই করতে পারেন।


কোন কাজের মাধ্যমে সহজে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করা যায়

সহজে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করার ক্ষেত্রে বেশ কিছু কাজ রয়েছে যেগুলো জানা থাকলে করা যায় এবং অনেক কাজ আছে যেগুলো জানা না থাকলেও করা যায় অল্প কিছু অভিজ্ঞতা দিয়ে।

তার মানে হল আপনি চাইলে খুব সহজে অনেক ধরনের কাজ আছে যেগুলো অনলাইন থেকে অল্প সময়ে শিখে নিতে পারবেন এবং সেগুলো দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

যেমন একটা কাজ হল ডাটা এন্ট্রি এটাকে অনলাইনে সবচেয়ে সহজ কাজ বলে মানা হয় এবং এটা সবাই করতে পারে এবং এটা আসলেই খুব সহজ একটা কাজ।

কেন ডাটা এন্ট্রি কাজ টা এত সহজ এবং সবাই করতে পারে আসলে এটা হল একটা কপি পেস্টের মতো কাজ যেমন কেউ আপনাকে একটা বুক দিল এবং সেখানে যে লেখাগুলো আছে সেগুলো কে আপনার হয়তো নোটপ্যাডে অথবা মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ডকুমেন্টে লিখে দিতে হবে ওখান থেকে দেখে দেখে এরকম কাজ।

তাছাড়া আরও অনেক সহজ সহজ কাজ রয়েছে যেগুলো করে আপনি ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন এবং সে ক্ষেত্রে আমি কিছু সহজ কাজের কথা উল্লেখ করে দিচ্ছি যেগুলো একেবারে সহজ এবং চাইলে সবাই করতে পারবে।

ডাটা এন্ট্রি করা , এবং ইমেজের ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করা, কিউআর কোড বানানো, clickable ইমেইল সিগনেচার বানানো, ছোটখাটো লোগো বানানো, নরমাল ভিডিও এডিটিং করা, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করা, ইউটিউব ভিডিও থাম্বেল বানানো, সাদাকালো ইমেজ কালারফুল করা, ইত্যাদি।

এধরনের আরো অনেক ছোটখাটো কাজ রয়েছে যেগুলো খুব সহজেই শেখা যায় অনলাইনে এবং সবাইকে শেখার জন্য খুব বেশি সময় দিতে হবে না অল্পতেই শিখতে পারবে এবং ফ্রিল্যান্সিং করে কম বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবে।

আপনারা ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলোতে খুঁজলে এরকম ছোটখাটো অনেক কাজের সন্ধান পেয়ে যাবেন যেগুলো আপনারা খুব সহজেই শিখে করতে পারবেন এবং অনলাইন থেকে কিছু টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

যদি আপনাদের কারো কোন ধরনের হেল্প প্রয়োজন হয় অথবা কিভাবে সহজ কাজ গুলো অল্প সময়ের মধ্যে শেখা যায় সে বিষয়ে যদি জানতে চান তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করবেন আমি চেষ্টা করবো আপনাদের যতটুকু সম্ভব হেল্প করা।


কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং শিখবো এবং কার কাছ থেকে শিখব

ফ্রিল্যান্সিং যদি আপনি শিখতে চান তাহলে সেক্ষেত্রে আমি বলব যে একটুও সাবধানতার সাথে শেখার চেষ্টা করবেন কারণ সবাই সঠিকভাবে কাজ শিখায় না শুধুমাত্র টাকার জন্য মানুষের সাথে প্রতারণা করে।

কিছু কিছু ভালো ফ্রিল্যান্সার আছে যারা টাকার বিনিময় মানুষকে ফ্রিল্যান্সিং শিখিয়ে থাকে এবং সেক্ষেত্রে আপনাকে যাচাই-বাছাই করে নিতে হবে যে কার কাছ থেকে শেখা যায় এবং কার কাছ থেকে শিখলে ভালো হবে।

সত্য কথা বলতে কি ফ্রিল্যান্সিং শেখার কিছু নেই ফ্রিল্যান্সিং করতে হলে আপনাকে ভালো একটা স্কিলস শিখতে হবে যেটা দিয়ে আপনি ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন।

স্কিলস শেখাটা এক বিষয় এবং ফ্রিল্যান্সিং শেখাটা অন্য বিষয় এবং আপনাকে প্রথম ডিসাইড করতে হবে যে আপনি আসলে কি শিখতে চাচ্ছেন স্কিলস নাকি ফ্রিল্যান্সিং

আপনি যদি স্কিলস শিখতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে ওটা ফলো করতে হবে যেমন আপনি কি ধরনের স্কিলস শিখতে চান যেমন ধরেন, গ্রাফিক ডিজাইন, অথবা ভিডিও এডিটিং ,অথবা অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট,অথবা ওয়েব ডেভেলপমেন্ট।

এবং যদি আপনি এ ধরনের কোনো কিছু শিখতে চান তাহলে একটা স্কিলস শিখতে চাই এটা বলতে পারেন কারণ এটাকে আপনি ফ্রিল্যান্সিং শিখতে চাই সেটা বলতে পারবেন না ফ্রিল্যান্সিং একটা ভিন্ন জিনিস।

যেমন ধরেন আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং শিখতে চান তাহলে আপনি শিখবেন কিভাবে বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং সাইটে গিয়ে স্মার্ট প্রোফাইল বানাতে হয় এবং কিভাবে ভালো Gig বানাতে হয় এবং কিভাবে ওই Gig গুলোকে সহজে রেংক করাতে হয়।

তাছাড়া কিভাবে সহজে ফ্রিল্যান্সিং সাইট থেকে কাজ পাওয়া যায় এবং কিভাবে সহজে বায়ারদের কে কনভিন্স করা যায় এবং ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলোতে সহজে কাজ পেতে হলে কোন বিষয়গুলো কে বেশি গুরুত্ব দিতে হয়।

আপনি যদি এ ধরনের কিছু শিখতে চান তাহলে আপনি বলতে পারেন যে আমি ফ্রিল্যান্সিং শিখতে চাই তাহলে আশাকরি বুঝতে পেরেছেন যে ফ্রিল্যান্সিং শেখা কি এবং স্কিলস শেখাটা কি।

তাহলে আপনি প্রথম ডিসাইড করেন যে আপনি কি শিখতে চাচ্ছেন এবং সেটা সঠিকভাবে শেখার চেষ্টা করবেন কারণ আপনার যদি ভালো দক্ষতা থাকে তাহলে আপনি সহজেই ফ্রিল্যান্সিং করে সাকসেসফুল হতে পারবে।

এবং আপনি যদি কোন স্কিলস শিখতে চান তাহলে অবশ্যই বলব প্রথমে ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলোতে ভালো করে যাচাই করে নিবেন যে আপনি যে স্কিলস টা শিখতে চাচ্ছেন বর্তমানে সেই স্কিলস এর কেমন ডিমান্ড আছে ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলোতে।

তার কারণ আপনি যদি একটা স্কিলস শেখেন এবং সেটার ডিমান্ড না থাকে তাহলে কাজ পাবেন কিভাবে এবং সে ক্ষেত্রে আপনি অবশ্যই কেয়ারফুল থাকবেন এবং ভালো একটা স্কিলস শিখবেন যেটা দিয়ে আপনি ফ্রিল্যান্সিং করে ভালো পরিমাণে টাকা ইনকাম করতে পারেন।


ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার হিসেবে ভবিষ্যতে কেমন হবে

যদি আপনার ভালো স্কিলস থাকে তাহলে অবশ্যই ফ্রিল্যান্সিং ভবিষ্যতে আপনার জন্য খুবই ভালো হবে সেটা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই এবং তার কারণ বর্তমানে সবাই সব কাজ অনলাইনে সহজে করাতে চায়।

বর্তমানে দেখবেন যে ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলোতে প্রচুর পরিমানের কাজ পাওয়া যাচ্ছে এবং যারা ফ্রিল্যান্স তারা বর্তমানে খুব ভালো পরিমাণের টাকা ইনকাম করে ফ্রিল্যান্সিং করে।

এবং সেক্ষেত্রে আমি বলব যে ফ্রিল্যান্সিং ফিউচারের জন্য খুবই ভালো হবে তবে আপনার ভালো একটা স্কিলস থাকতে হবে অথবা ভালো একটা স্কিলস শিখে নিতে হবে এবং তাহলেই আপনার ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার ভবিষ্যতের জন্য ভালো হবে।

এবং আমি বলব যদি আপনার ভালো কোন স্কিলস থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনি ফ্রিল্যান্সিং ট্রাই করতে পারেন এবং যদি সঠিকভাবে চেষ্টা করেন তাহলে অবশ্যই ফ্রিল্যান্সিং আপনার জন্য খুব ভালো একটা অপরচুনিটি হতে পারে।

আর আপনার যদি তেমন ভালো কোন স্কিলস না থাকে তাহলে সে ক্ষেত্রে আমি বলব অবশ্যই আপনি ভালো একটা স্কিলস শিখে নেন যে স্কিলস এর বর্তমানে ভালো ডিমান্ড আছে।

আমি অবশ্য অলরেডি আপনাকে কিছু ভালো স্কিলস এর ব্যাপারে বলে দিয়েছি তারপরেও এবং যদি আপনার আরও বিস্তারিত ভাবে কোন কিছু জানার প্রয়োজন হয় সে ক্ষেত্রে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন এবং আমি অবশ্যই রিপ্লে দেব ইনশাআল্লাহ।


সবাই কেন ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে চায়

কেন সবাই চায় যে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করি তার পিছনে কারন টা কি এবং কেন সবাই ফ্রীল্যান্সিং নিয়ে এত কথা বলে অথবা ফ্রিল্যান্সিং করতে চাই।

এখানে প্রথম যে বিষয়টা সেটা হল স্বাধীনতা কারণ যারা ফ্রিল্যান্সিং করে তারা নিজের ইচ্ছে মত কাজ করতে পারে তাদের কোন বস থাকে না এবং নিজেই নিজের বস।

তাছাড়া চাকরি করলে একটা নির্ধারিত বেতন থাকে এবং যারা ফ্রিল্যান্সিং করে তাদের কোন নির্ধারিত বেতন নেই কারণ তারা যত কাজ করবে ততই টাকা এবং এটার কোনো সীমাবদ্ধ নেই।

তাছাড়া যারা অফিসে চাকরি করলে একটা নির্ধারিত বেতন থাকে এবং যারা ফ্রিল্যান্সিং করে তাদের কোন নির্ধারিত বেতন নেই কারণ তারা যত কাজ করবে ততই টাকা এবং এটার কোনো সীমাবদ্ধ নেই যার যতটুকু ইচ্ছে এবং যেভাবে ইচ্ছে করতে পারে।

নিজের ইচ্ছে মতো ঘরে বসে কাজ করা যায় এবং যখন ইচ্ছে তখনই করা যায় এরচেয়েও সুবিধা আর কি হতে পারে এবং টাকার দিক দিয়ে যারা অফিসে চাকরি করে তাদের চেয়েও অনেক বেশি টাকা ইনকাম করতে পারে যারা ফ্রিল্যান্সিং করে।

এবং এটাই সবচেয়ে বড় কারণ সবাই ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে চাই এবং আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন মূল কারণটা কি।


কোন দক্ষতা না থাকলে কি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করা যায়

আপনার যদি দক্ষতা না থাকে তাহলে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম অথবা অন্য কোথাও থেকে কোন কিছু করে টাকা ইনকাম করা সেটাও সম্ভব হবে না এবং যদি আপনার অল্প কিছু অভিজ্ঞতা থেকে থাকে যেকোনো স্কিলস সম্বন্ধে তাহলে অবশ্যই আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

যে কাজগুলো করতে হলে অভিজ্ঞতা লাগে না অথবা অল্প অভিজ্ঞতার মাঝে করা যায় আমি সেগুলো প্রথমে বলে দিয়েছি এবং আপনারা চাইলে ওইগুলো ট্রাই করতে পারেন এবং ওই কাজগুলো করে অনেক ফ্রিল্যান্সাররা ভালো পরিমাণের টাকা ইনকাম করে থাকে।

তবে আপনার কিছুটা অভিজ্ঞতা অবশ্যই থাকতে হবে অথবা আপনাকে কিছু  অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে সেই কাজগুলোর বিষয়ে যদি আপনি ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে চান।

আপনি যদি মনে করেন একেবারে অভিজ্ঞতা ছাড়া ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করবেন সেটা সম্ভব না কারণ অভিজ্ঞতা ছাড়া কখনো কেউ কোন কাজ করতে পারে না।

এবং অবশ্যই আপনাকে অবশ্যই এ বিষয়গুলো মাথায় রেখে তারপর চিন্তাভাবনা করতে হবে যে আপনি কি ফ্রিল্যান্সিং করবেন কিনা।


কিছু প্রশ্ন এবং সে প্রশ্নের উত্তর

ফ্রিল্যান্সিং কি মোবাইল দিয়ে করা যাবে নাকি কম্পিউটার থাকতে হবে?

ফ্রিল্যান্সিং মোবাইল দিয়ে করা যায় এবং কম্পিউটার দিয়ে করা যায় তবে সে ক্ষেত্রে পার্থক্য হল স্ক্রিনের ছোট-বড় এবং কিছু কিছু কাজ আছে যেগুলো মোবাইলের মধ্যে করা সম্ভব হয় না সে ক্ষেত্রে কম্পিউটারের প্রয়োজন হয়।

তাছাড়া নরমাল যে কাজগুলো আছে সেগুলো মোবাইলের মাধ্যমে করতে পারবেন।


ফ্রিল্যান্সিং করতে হলে কি ইংলিশ জানতে হবে?

অবশ্যই আপনাকে ইংলিশ জানতে হবে কারণ ফ্রিল্যান্সিং কাজগুলো যে সাইটগুলোতে করে সেখানে সব বাইরের ক্লায়েন্ট হয় এবং সে ক্ষেত্রে ইংলিশ জানাটা বাধ্যতামূলক তবে আপনার যদি বেসিক ইংলিশ জানা থাকে তা হলেও চলবে।


ফ্রিল্যান্সিং করে কি অনেক টাকা ইনকাম করা যায়?

ফ্রিল্যান্সিং করে অনেকে মাসে হাজার হাজার ডলার এমনকি লক্ষ লক্ষ ডলার ইনকাম করে তবে সেটা নির্ভর করে আপনার কিরকম স্কিলস আছে।

আপনার স্কিলস যত হাই লেভেলের হবে আপনার ইনকাম তত বেশি হবেএবং সেক্ষেত্রে আপনি বুঝে দেখেন আপনার ইনকাম কেমন হবে।


যারা এ পর্যন্ত আর্টিকেলটা পড়েছেন তাদের কে অসংখ্য  ধন্যবাদ এবং আপনার যদি কোন মতামত থাকে সেটা অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন এবং যদি কোন কিছুর বিষয়ে জানতে চান সেটাও কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন আমি অবশ্যই রিপ্লে দেওয়ার চেষ্টা করব ইনশাআল্লাহ।


👉আবারো সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ  এবং আপনি চাইলে এই সাইটের সবগুলো পোস্ট চেক করতে পারেন কারণ এখানে সব গুলো পোস্ট কিভাবে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করা যায় সে বিষয়ের উপরে বিস্তারিতভাবে এবং সংক্ষেপে বলা আছে।

👉আল্লাহ সবাইকে ভালো এবং সুস্থ রাখুক আল্লাহ হাফেজ👈


  • ফ্রিল্যান্সিং এ কি কি কাজ করা যায়
  • ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার জন্য কিসের প্রয়োজন
  • ফ্রিল্যান্সিং করে যে কাজে বেশি টাকা আয় করতে পারবেন
  • ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো
  • ঘরে বসে টাকা আয় করতে চাই
  • ফ্রিল্যান্সিং কোন কাজের চাহিদা বেশি
  • ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস তালিকা
  • ফ্রিল্যান্সিং কাকে বলে
  • ফ্রিল্যান্সিং কেন করা উচিত


Comments

  1. cpa Marketing আমি কিভাবে কোথায় শিক্ষবো এই বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করলে উপকৃত হবো।

    ReplyDelete
    Replies
    1. আপনি যদি সিপিএ মার্কেটিং শিখতে চান তাহলে আমি তো আর শেখাতে পারবো না তো সে ক্ষেত্রে আমি দুইটা ইউটিউব চ্যানেলের লিংক আপনাকে দিচ্ছি ওখান থেকে আশা করি মোটামুটি ভাল দারুণ আপনি পেয়ে যাবেন

      লিঙ্ক 1

      লিঙ্ক 2

      Delete
  2. Web development sikte chai.....kotha theeke sikhbo,,kon resource tah best hobe,,jodi bolten..?

    ReplyDelete
  3. apone chaile w3schools theke shikte paren othoba
    Jhankar Mahbub ke folow korte paren youtube a tahole valo hobe

    w3schools Web Site
    Jhankar Mahbub YouTube Chennel
    Jhankar Mahbub Video

    ReplyDelete
  4. Just share your referral links for everybody. I'm happy to get this account creating offer and refer link offer to get $ 100. Don't miss anyone.

    ReplyDelete

Post a Comment

Please do not enter any spam link in the comment box. Thanks

Popular posts from this blog

শীর্ষ 6 টি উপায় অনলাইন থেকে টাকা আয় করার সহজ ও সঠিক উপায় | Top 6 Way Online Theke Taka Income Korar

কিভাবে অনলাইন থেকে সঠিক উপায়ে ও সহজে টাকা ইনকাম করা যায় শীর্ষ 6 টি উপায় Kivabe Taka income Korbo  Kivabe Taka income Korbo  Best Way Online Theke Taka Income Korar  অনলাইন ইনকাম অনলাইন থেকে কিভাবে সহজে টাকা  ইনকাম করা যায় অথবা অনলাইনে কিভাবে টাকা  আয় করা যায় এ ধরনের প্রশ্নগুলো বেশির ভাগ করা হয়ে থাকে ইন্টারনেটে। আপনি যখন এখানে এসেছেন তাহলে অবশ্যই আপনি নতুন এবং আপনি অনলাইন থেকে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায় সেটা জানতে চাচ্ছেন। অথবা শিখতে চাচ্ছেন তো আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে আপনাকে সঠিকভাবে গাইড করা। আপনি যদি মনে করে থাকেন যে আপনাকে কোন মোবাইলের অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করার লিংক দেওয়া হবে। অথবা ওয়েবসাইটের লিংক দেওয়া হবে কাজ করার জন্য এবং সেটা থেকে আপনি 500 টাকা অথবা 1000 টাকা দৈনিক ইনকাম করবেন বিকাশে পেমেন্ট নেবেন তাহলে আপনি ভুল জায়গায়  চলে এসেছেন।  আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত যে আপনাকে হতাশ করা ছাড়া আমার আর কিছুই করার নেই  তবে যদি আপনি সমস্ত আর্টিকেলটা পড়েন তাহলে আশাকরি আপনার যত ভুল ধারণা আছে সেই সবগুলো আর থাকবে না। যদি মোবাইলের সফটওয়্যার ডাউনলোড করে সফটওয়্যার  দিয়ে অথবা ওয়েব স

Ayatul Kursi Bangla Anubad shoho, | আয়াতুল কুরসি বাংলা অনুবাদ সহ

Ayatul Kursi Bangla  আয়াতুল কুরসি বাংলা আয়াতুল কুরসী  বাংলায় অনুবাদ সহ আরবিতে পিকচার ও টেক্সট সহ দেয়া হলো আয়াতুল কুরসী  এমন এক আয়াত যার গোনাগন বলেশেষ করার মতো নয় তবে কিস ফজিলত ও গোনাগন উল্লেখ করা হলো জানার জন্য নিচে সম্পূর্ণ দেখোন Ayatul Kursi Bangla Ayatul kursi bangla  onubad shoho picture o text shoho deya holo Ayatul kursi  amon ak ayat jar gonagon boleshesh korar moto noy tobe kiso fojilot o gonagon ollekh kora holo janar jonno niche shompurno dekhon Ayatul kursi bangla  meaning Ayatul Kursi Bangla Anubad shoho, আয়াতুল কুরসি বাংলা অনুবাদ সোহো আয়াতুল কুরসী  আয়াতুল কুরসী (আরবি: آية الكرسي ‎) হচ্ছে পবিত্র কোরআন শরীফের দ্বিতীয় সুরা আল বাকারার ২৫৫তম আয়াতটি। এটি কোরআন শরীফের সবচেয়ে প্রসিদ্ধ আয়াত এবং ইসলামিক বিশ্বের এটি ব্যাপকভাবে মুখস্ত করা হয়। এতে সমগ্র মহাবিশ্বের উপর আল্লাহর জোরালো ক্ষমতার কথা বর্ণনা করে। নবী মুহাম্মদ (সা•) বলেছেন, যে ব্যক্তি প্রত্যেহ পাঁচ ওযাক্ত নামাজের পর সঙ্গে সঙ্গে আয়তুল কুরসি পাঠ করবেন তার আর জান্নাতের মাঝে ব্যবধান থাকল মৃত্যু। অর্থাৎ মৃত্যু হলেই তিনি জা

6 Kalima in Bangla ortho o Uccharan Shoho | ৬ কালেমা বাংলা উচ্চারণ ও বাংলা অর্থ সহ

৬ কালেমা বাংলা উচ্চারণ  6 Kalima কালিমা সমূহ  ৬ কলিমা আরবী ও বাংলা উচ্চারণ ও অর্থ সহ এবং ঈমান-ই মুজমাল  ঈমান-ই মুজমাল সহ চলুন জেনে নেই 6 Kalima in Bangla(Bengali) ortho o Uccharan Shoho ৬ কালেমা বাংলা উচ্চারণ  সহ ইসলামিক সব গরুত্ব পর্ণ দুআ ও আমল সমূহ, এবং নবীদের জীবনী, ইসলামিক যুদ্ধের কাহিনী, জানতে আমাদের আপ্প  ডাউনলোড করুন Download App Now কালেমা কয়টি ও কি কি  কালিমা ৬ টি   (1) কালেমা-ই তাইয়্যেবা   (2). কালেমা-ই শাহাদৎ  (3)  কালেমা-ই তাওহীদ  (4.) কালেমা-ই রদ্দেকুফর  (5). কালিমা-ই তামজীদ  (6.) কালিমা আস্তাগফার ৬ কালেমা বাংলা উচ্চারণ 6 kalima in bangla 1. কালেমা-ই তাইয়্যেবা   بِسْمِ ٱللَّهِ ٱلرَّحْمَٰنِ ٱلرَّحِيمِ  لَا اِلَهَ اِلاَّ اللهُ مُحَمَّدُ رَّسُوْ لُ الله  বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।  কালিমা তায়্যিবা বাংলা উচ্চারণ  Kalima Tayyiba Bangla লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ । কালিমা তায়্যিবা অর্থ  আল্লাহ ব্যাতিত/ ছাড়া কোন মাবুদ (এলাহ) নেই। হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) আল্লাহর প্রেরিত রাসূল।  2. কালেমা-ই শাহাদৎ কালেমা শাহাদাত আরবি  بِسْمِ ٱللَّهِ ٱلرَّحْمَٰنِ ٱلرَّحِيمِ   اَشْ